হটলাইন: +৮৮ (০১৭) ৫৫ ৬১৫ ৬৮১, +৮৮ (০১৮) ৪২ ৬১৫ ৬৮১
আরো জানতে ফোন কিংবা ফেসবুকে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন
  • ভোজনরসিক ডট কমে আপনাকে স্বাগতম

    প্রাচীনকাল থেকেই বাংলাদেশ নানা রকম সুস্বাদু ও ঐতিহাসিক খাবারের জন্য বিখ্যাত। প্রচুর চাহিদা থাকা সত্ত্বেও অনেকেই সেই সব ঐতিহ্যবাহী খাবারের স্বাদ গ্রহন করতে পারেন না শুধুমাত্র সহজলভ্যতার অভাবে। যার ফলশ্রুতিতে অতি সুস্বাদু এইসব খাবার পৌছাচ্ছেনা বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর কাছে এবং উৎপাদনকারীরা বঞ্চিত হচ্ছেন বিপুল পরিমান আর্থিক মুনাফা থেকে। অনেকেই হতাশ হয়ে ত্যাগ করছেন এই শিল্প এবং বাংলাদেশ হারাচ্ছে তার বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী খাবার।

    এমতাবস্থায়, ‘ভোজনরসিক ডট কম’ এগিয়ে এসেছে আধুনিক বাঙ্গালিদেরকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিতে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী সব খাবারের সাথে। নানা ভেজালের ভীড়ে আদি ও প্রকৃত উৎস থেকে সংগৃহীত এইসব খাবার যে কেউ পেতে পারে ঘরে বসেই।
    প্রযুক্তির এই যুগে আজ ঘরে ঘরে বসে ইন্টারনেট এর মাধ্যমে কেনাকাটা করা যায় পৃথিবীর যেকোন প্রান্তের পণ্য যেকোন জায়গা থেক। ‘ভোজনরসিক ডট কম’ এর উদ্দেশ্য হচ্ছে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে বাংলাদেশের বিখ্যাত সব খাবার এবং তাদের ক্রেতাদের মধ্যে বিদ্যমান দূরত্ব ঘুচিয়ে দেয়া। ফলে, যেকেউ যেকোন যায়গা থেকে অর্ডার করতে পারবে তার পছন্দের খাবারের এবং খাবার পৌছে যাবে তার দোরগোড়ায়।

  • ঘরে বসেই ভোজনরসিক ! ! !

    ১) অর্ডার করবেন যেভাবে

    আপনার পছন্দের খাবারটি অর্ডার করতে ৪টি প্রক্রিয়ায়। সেগুলো হলোঃ আমাদের হটলাইন ২টিতে ফোন দিতে পারেন, ই-মেইল করতে পারেন, ওয়েবসাইট-এ অর্ডার করতে পারেন অথবা আমাদের অফিসে এসেও সরাসরি অর্ডার করতে পারেন।

    ২) অর্ডার সংগ্রহ ও সরবরাহ

    আমরা সপ্তাহব্যাপী অর্ডার সংগ্রহকরে নির্দিষ্ট একটি দিনে তা ভোক্তার কাছে সরবরাহ করে থাকি পরিবহনের সুবিধার্তে আমরা এখন শুধু সপ্তাহের ১টি দিনকে বেছে নিয়েছি প্রতি শনিবার আমরা ভোক্তার কাছে খাবার সরবরাহ করবো।

    ৩) হোম ডেলিভারি প্রক্রিয়া

    আমরা বর্তমানে ঢাকার ভিতরে হোম ডেলিভারি দিয়ে থাকি আপনি কোন অতিরিক্ত চার্জ ছাড়া খুব সহজেই বাসায় বসে আপনার পছন্দের খাবারটি পেতে পারেন অর্ডার করার পর আমরা ফোন করে আপনার ঠিকানা নিশ্চিত হব তারপর আপনার নির্দিষ্ট ঠিকানায় খাবার পৌঁছে দিব।

    ৪) ক্যাশ অন ডেলিভারি

    আপনি আপনার পছন্দের খাবারটি হাতে পেয়ে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন আপনাকে অর্ডারের সময় কোন টাকা দিতে হবে না খাবারের মান সম্পর্কে আপনার অভিযোগ থাকলে আপনি ফেরত দিতে পারবেন।

  • পণ্যসমূহের মূল্য তালিকা

    • - ক্ষীরসা বগুড়া (৪৯৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - সরাই দধি বগুড়া (২৬৫৳ প্রতি ৭৫০ গ্রাম)
    • - বগুড়ার স্পেশাল ডায়াবেটিকস দই (৩২৫৳ প্রতি ৭৫০ গ্রাম)
    • - টাঙ্গাইলের চমচম (৩৭৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - টাঙ্গাইলের পান্তোয়া (৩৮৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - মালাই চমচম টাঙ্গাইল (৪৮৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - স্পেশাল বালিশ চমচম (৩৯৫/৪৫৫/৫২৫৳ প্রতি ১ কেজি) কেজিতে ৪/৩/২ টি করে
    • - রাঘব সন্দেশ নাটোর (৪৭৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - অবাক সন্দেশ নাটোর (৪৮৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - ক্ষীরসাপাতি/গুড়ের সন্দেশ নাটোর (৪৯৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - বগুড়ার স্পেশাল চিনি ছাড়া সন্দেশ (৬৫৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - কুমিল্লার রসমালাই (৪২৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - বরফী স্পঞ্জ কুমিল্লা (৪৩৫৳ প্রতি ১ কেজি)
    • - নাটোরের কাঁচাগোল্লা (৪৫৫৳ প্রতি ১ কেজি)

    অর্ডারের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করুন

  • আপনার প্রতিক্রিয়া

    যোগাযোগ

    adress of vojonroshik

    স্যুট ২০৪, ডঃ নওয়াব আলী টাওয়ার (৩য় তলা)
    ২৪, পুরানা পল্টন (হাউজ বিল্ডিং এর উত্তর পাশ)
    ই-মেইলঃ   info@vojonroshik.com মোবাইলঃ   ০১৭ ৫৫ ৬১৫ ৬৮১
    ০১৮ ৪২ ৬১৫ ৬৮১

  • যেভাবে ভোজনরসিকের যাত্রা শুরু

    যুগের আধুনিকতায় বাংলার রসনা-বিলাসের ঐতিহ্য কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে। আর সহজলভ্যতার অভাবে শহুরে বুদ হয়ে থাকা মানুষ আজ ভুলতে বসেছে সুস্বাদু আর ঐতিহ্যবাহী এইসব বিখ্যাত খাবারের স্বাদ। এমতাবস্থায় দেশের ঐতিহ্য রক্ষার্থে আর অঞ্চলভেদে এই সকল খাবার তৈরির সাথে যেসব মানুষ জড়িত তাদেরকে আরো বেশি উৎসাহিত করতে এই উদ্যোগ।



  • নেপথ্যে আছেন যারা ! ! !

    তথ্য-প্রযুক্তির উতকর্ষতার সাথে আজকের বিশ্ব সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে। তাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু স্বপ্নবাজ আর উদ্যোমী তরুণ নিজেদের সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে এই অভিনব উদ্যোগ হাতে নেয়। প্রযুক্তির সাথে দেশের ঐতিহ্যের এক অপূর্ব মেলবন্ধনেই সৃষ্টি হয় ভোজনরসিক ডট কম। যান্ত্রিকতায় ভরপুর এই শহুরে সমাজকে ঘরে বসে বাংলার ঐতিহ্যবাহী এইসব খাবারের স্বাদ উপভোগ করার সুযোগ করে দিতেই এই প্রয়াস।

    বহুল প্রচলিত ধারণা, “স্বাদে সমৃদ্ধ, বাঙালির ঐতিহ্য”। আর তাই আমাদের বিশ্বাস, “বাঙালির ঐতিহ্য, বাংলার খাবার”। এই বিশ্বাস থেকেই আমরা আপনাদের জন্য “ঘরে বসে ঐতিহ্যের খাবার” – এর ব্যবস্থা করেছি। তাইতো আমরা আজ প্রাণ খুলে দাবি করতে পারি, “ঐতিহ্যের সাথে, সবার পাশে”। সর্বোপরি ভোজনপ্রিয় বাঙালী জাতির উদ্দেশ্যে একটাই আবেদন, “খাবেন যখন চেটে-পুটে খান”।

    আমাদের এই প্রচেষ্টার সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে দেশের অন্যতম দু’টি সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানঃ AceTech Bangladesh এবং comfosys Limited। এদের মাঝে AceTech Bangladesh ইতিমধ্যে বিভিন্ন উদ্যোগী প্রচেষ্টা এবং অনলাইন-ভিত্তিক বিভিন্ন কার্যকলাপ ও ব্যবসাতে সুনাম ধরে রেখেছে। অন্যদিকে comfosys Limited দেশের সফটওয়্যার বিনির্মাণে দীর্ঘদিন ধরে সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। এই দুই প্রতিষ্ঠানের সহযোগীতায় এই মহান উদ্যোগ বাস্তবায়িত হয়। আর এই দুই প্রতিষ্ঠানের কিছু পেশাদার কর্মী এই উদ্যোগকে জনগণের কাছে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য করে তুলতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।